ই শ্রম আবেদন পদ্ধতি | e shram Card in bengali

0
139

গুরুত্বপূর্ণ তথ্য – ভারতবর্ষের তথা আমাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী শ্রমিকদের জন্য একটি প্রকল্প শুরু করেছেন যাতে শ্রমিক  ক্ষমতায়িত হতে পারে,  যার নাম হলো E shram (ই শ্রম)। 

কিন্তুআগেও সরকার অনেক প্রকল্প উদ্বোধন করেছিলেন কিন্তু  যাদের এই প্রকল্পের সুবিধা পাওয়া উচিত  তারা এই প্রকল্প থেকে বঞ্চিত ছিলো । 
তাই এই ধরনের শ্রমিকদের জন্য শ্রম মন্ত্রক ই-শ্রম পোর্টাল উদ্বোধন করেছে। যার ফলে শ্রমিকরা  ভারতবর্ষের  এই পোর্টালের মাধ্যমে অনেক সহজে তথ্য   জানতে পারবে এই পর্তেলের মাধ্যমে । 


আজ আমরা এই পোর্টালে এপ্লিকেশন এর  প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া,, সুবিধা, যোগ্যতা এবং নথি সম্পর্কে আলোচনা করবো ।

পদের নাম – বিভিন্ন স্নাতক স্তরের পদ 

✅🔥🔥বিপুল বেসরকারি -সরকারি চাকরির খবর পেতে ক্লিক করুন

মাধ্যমিক পাশে সমস্ত লেটেস্ট সরকারি চাকরির খবর দেখুন
উচ্চমাধ্যমিক পাশে সমস্ত লেটেস্ট সরকারি চাকরির খবর দেখুন
গ্রাজুয়েট/স্নাতক পাশে সমস্ত লেটেস্ট সরকারি চাকরির খবরদেখুন
ইঞ্জিনীরিং পাশে লেটেস্ট সরকারি চাকরির খবর দেখুন
শিক্ষাবিভাগের লেটেস্ট সরকারি চাকরির খবর দেখুন
স্বাস্থ্য বিভাগের লেটেস্ট সরকারি চাকরির খবর দেখুন
GK, কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স ,পরীক্ষা প্রস্তুতি দেখুন
সমস্ত লেটেস্ট চাকরির খবর দেখুন
বেসরকারি -সরকারি চাকরির খবর । government job news

(ই শ্রম কার্ড, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রক ভারত মিশন )

E শ্রম এলিজিবিলিটি E শ্রম আবেদন পদ্ধতি আপলোড ডকুমেন্টস
ডাউনলোড নোটিফিকেশন বয়স সীমা আবেদন করুন (Apply online)
ই শ্রম কার্ড রেজিস্ট্রেশন 2021
(ই শ্রম কার্ড, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রক ভারত মিশন )
গুরুত্বপূর্ন তারিখ আবেদন ফি- 
*এখনই আবেদন শুরু করুন জেনারেল / ও বি সি NIL
এস সি/ এস টি   NIL 
লোকেশন / বাসস্থান বয়স সীমা


ভারতবর্ষের যে কোনো যায়গা থেকে
18 বছর থেকে 59 বছর পর্যন্ত হতে হবে | 
এক নজরে ই শ্রম

✌️ 🔥 বিঃ দ্রঃ : আপনি যদি সমস্ত চাকরির নোটিশ সবার আগে পেতে চান, প্রতিদিন মকটেস্ট ও কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স পেতে চান তাহলে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেল-এ এখনই যুক্ত হয়ে যান।

Join Our  Telegram Channel CLICK HERE
Notification updateCLICK HERE
সমস্ত চাকরির খবর ও প্রস্তুতি এক ক্লিকেই
গুরুত্বপূর্ণ তথ্য –

E shram| ই- শ্রম আবেদন পদ্ধতি :

ই-শ্রম পোর্টাল: – এই পোর্টালের মাধ্যমে অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকদের একটি অনলাইন ডাটাবেস তৈরি করা হবে যেখানে  শ্রমিকের  আধার কার্ড লিঙ্ক করা হবে।  
যার ফলে শ্রমিক, রাস্তার বিক্রেতা ও গৃহকর্মী এক সাথে যুক্ত হবে। 

পোর্টালে নাম, ঠিকানা, চাকরি, শিক্ষাগত যোগ্যতা, কোন কাজে তারা দক্ষ এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের তথ্য নেওয়া হবে।  
এই ই শ্রম পোর্টালএর  মাধ্যমে  ভারত সরকার কর্মীদের নতুন পরিকল্পনা সম্পর্কে সচেতন করবে।
এপ্লিকেশন এর শেষে কর্মীদের 10 নম্বরের একটি ই-কার্ড প্রিন্ট করতে হবে,  যা সারা দেশ তথা সমগ্র ভারতবর্ষে  বৈধ হবে। 
এক নজরে ই শ্রম
এই প্রকল্পের সুবিধা পেতে যে সব কর্মীরা অনলাইনে আবেদন  করতে পারবে :
  
ছুতার
  
মিডওয়াইফ
  
রিক্সা চালক
  
চামড়া শ্রমিক
  
শ্রমিক
  
সংবাদপত্র বিক্রেতা
  
গৃহকর্মী নাপিত
  
ফল ও সবজি বিক্রেতা
  
MGNREGA কর্মী
  
CSC কেন্দ্র পরিচালক
  
ক্ষেতমজুর
  
আশা কর্মী
  
ভবন ও নির্মাণ শ্রমিক
 
যারা আবেদন করতে পারবে – অসংগঠিত সেক্টরের কর্মীরা 
   
এক নজরে ই শ্রম
প্রয়োজনীয় নথি- 
  
আধার কার্ড
  
আধার কার্ডের সাথে মোবাইল নম্বর লিঙ্ক করতে হবে
  
ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট,
  
IIFSC কোড
  
আয়ের শংসাপত্র
  
বসবাসের শংসাপত্র
  
বয়সের শংসাপত্র
  
রেশন কার্ড
  
পাসপোর্ট ফটো মোবাইল নম্বর
আবেদন করুন (Apply online) 1. REGENERATION

2. LOGIN
ডাউনলোড নোটিফিকেশন CLICK HERE
ফোটো সাবমিট এর নিয়ম CLICK HERE
Join Our  Telegram ChannelCLICK HERE
Official website CLICK HERE

ই-শ্রম কি?

ই-শ্রম পোর্টালটি অসংগঠিত কর্মীদের নিয়ে ডাটাবেস তৈরি তৈরি করা হয়েছে, যেখানে একজন ব্যক্তির আধার দিয়ে লিংক করা হয়েছে। সেই তথ্যের মধ্যে কর্মীদের নাম, পেশা, ঠিকানা, শিক্ষাগত যোগ্যতা, দক্ষতার ধরন এবং পারিবারিক বিবরণ ইত্যাদি রয়েছে।

ই-শ্রম কার্ডের সুবিধা কি কি ?

ই-শ্রম অসংগঠিত শ্রমিকদের জন্য সামাজিক নিরাপত্তা পরিষেবা । যা MoLE দ্বারা পরিচালিত UW এবং পরে অন্যান্য মন্ত্রণালয় দ্বারা সমাজের প্রকল্পগুলিকে একসঙ্গে করতে সাহায্য করবে বলে ভাবা হচ্ছে৷

কে ই শ্রম কার্ডের জন্য সর্বচ্য বয়স সীমা কত ?

16-59 বছরের মধ্যে বয়সী যেকোন কর্মী eSHRAM পোর্টালে আবেদন করতে পারবে |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here