বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মজীবনী(PDF) |Bibhutibhushan Bandyopadhyay

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মজীবনী |Bibhutibhushan Bandyopadhyay
বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মজীবনী |Bibhutibhushan Bandyopadhyay

Bibhutibhushan Bandyopadhyay: বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মজীবনী pdf এক ক্লিকেই ডাউনলোড করুন |বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় রচনাবলী,বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় প্রবন্ধ রচনা pdf (bibhutibhushan bandopadhyay biography)নিম্নে বর্ণনা হয়েছে –

কথাসাহিত্য থেকে শুরু করে শতাধিক ছোট গল্প, মুষ্টিমেয় দুর্দান্ত স্মৃতিকথা থেকে শুরু করে প্রবন্ধ – যা ছিল বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় এর কালজয়ী সৃষ্টি।

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মজীবনী |Bibhutibhushan Bandyopadhyay

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মজীবনী pdf এক ক্লিকেই ডাউনলোড করুন –

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মজীবনী(bibhutibhushan bandopadhyay biography)পড়ুন –ঐতিহাসিক অর্থে বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় একজন আধুনিকতাবাদী দক্ষ লেখক ছিলেন ।বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর ভাষা ও প্লট সম্পাদনে ঐতিহ্যবাহী কারিগর ছিলেন।বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আর গৌরীকুঞ্জ যেনো একে অপরের পরিপূরক। বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় (bibhutibhushan bandopadhyay)বাংলা সাহিত্যের অন্যতম মৌলিক কণ্ঠস্বর ছিলেন।

মনে হয় যেন ,তিনি ছিলেন অষ্টাদশ শতকের ইংল্যান্ডের রোমান্টিক কবিদের এক আত্মীয় আত্মা, কেননা তাঁর শ্লোকগুলি প্রকৃতিতে ফিরে আসার আহ্বান নিয়ে বেজে উঠেছিল—  যার ছটা পড়েছিল তাঁর সাহিত্যে| 

তিনি সহানুভূতি ও অন্তর্দৃষ্টির সাথে শহুরে জীবনের চ্যালেঞ্জগুলি সম্পর্কেও লিখেছেন, ঠিক তেমন গ্রামীণ জীবনের বাস্তবতার প্রতি তাঁর গভীর মনোযোগও  ছিল – যা তাঁর লেখার অনন্য স্বাদ এনেছিল।

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় (bibhutibhushan bandopadhyay)এর বিখ্যাত উপন্যাস -’পথের পাঁচালী’। অপরাজিতা , আরণ্যক, দেবজান, ইচ্ছামতি, ‘চাঁদের পাহাড়’ প্রভৃতি।

Join Our Telegram Channel CLICK HERE

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মজীবনী(PDF) |Bibhutibhushan Bandyopadhyay

‘পথের পাঁচালী’-বাংলার একটি গ্রামে বসবাসকারী একটি পরিবারের আন্তঃপ্রজন্মের কাহিনী বর্ণনা করে। 

তাঁর আরও কয়েকটি উপন্যাসেও, তিনি গ্রামীণ পরিবেশে ফিরে এসেছিলেন – যেমন -ইছামতীতে , যা নদীর নামে একটি উপন্যাস। ‘ অশনি -এ তিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের চাপ এবং 1943 সালের দুর্ভিক্ষের কারণে গ্রামীণ অর্থনীতির ক্রমান্বয়ে পতনের বর্ণনা দিয়েছেন যা বাংলার গ্রামাঞ্চলকে ধ্বংস করেছিল।

 তাঁর ‘আরণ্যক উপন্যাস’, বিহারের বন্য, অরণ্যভূমিতে পুঁজিবাদের দীর্ঘ হাতের অনুপ্রবেশের জরিপ করা একটি সর্বাধুনিক কাজের মধ্যে অন্যতম। গল্পের নায়ক সত্যচরণ, কলকাতার বেকারত্বের কারণে পাশের রাজ্যে একজন এস্টেট ম্যানেজারের চাকরি নিতে বাধ্য হন। কিন্তু তিনি তার ভূমিকার জন্য এককভাবে অনুপযুক্ত, প্রাকৃতিক দৃশ্যের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের দ্বারা তাকে আঘাত করা হয়েছে যার উপর তাকে জমির মালিকদের, তার নিয়োগকর্তাদের নির্মম দাবি চাপিয়ে দিতে হবে।

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় (bibhutibhushan bandopadhyay)– আরণ্যক অর্থনৈতিক অগ্রগতির স্বার্থে যখন পরিবেশের ধ্বংসকে অকল্পনীয়ভাবে স্বাভাবিক করা হচ্ছে তখন আমাদের সময়ের জন্য একটি আয়না ধরে আছে বলে মনে হচ্ছে।

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মজীবনী(PDF) পেতে ফলো করুন টেলিগ্রাম –

✌️ 🔥 বিঃ দ্রঃ : আপনি যদি সমস্ত চাকরির নোটিশ সবার আগে পেতে চান, প্রতিদিন মকটেস্ট ও কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স পেতে চান তাহলে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেল-এ এখনই যুক্ত হয়ে যান।

Join Our  Telegram Channel CLICK HERE
Notification updateCLICK HERE
বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মজীবনী(PDF) পেতে ফলো করুন টেলিগ্রাম

✅🔥🔥বিপুল বেসরকারি -সরকারি চাকরির খবর পেতে ক্লিক করুন

মাধ্যমিক পাশে সমস্ত লেটেস্ট সরকারি চাকরির খবর দেখুন
উচ্চমাধ্যমিক পাশে সমস্ত লেটেস্ট সরকারি চাকরির খবর দেখুন
গ্রাজুয়েট/স্নাতক পাশে সমস্ত লেটেস্ট সরকারি চাকরির খবরদেখুন
ইঞ্জিনীরিং পাশে লেটেস্ট সরকারি চাকরির খবর দেখুন
শিক্ষাবিভাগের লেটেস্ট সরকারি চাকরির খবর দেখুন
স্বাস্থ্য বিভাগের লেটেস্ট সরকারি চাকরির খবর দেখুন
GK, কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স ,পরীক্ষা প্রস্তুতি দেখুন
সমস্ত লেটেস্ট চাকরির খবর দেখুন
বেসরকারি -সরকারি চাকরির খবর । government job news

তিনি সারাজীবন পূর্ব ভারতের সীমিত ব্যাসার্ধের বাইরে ভ্রমণ করেননি, বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় ছিলেন একজন সত্যিকারের বিশ্বজনীন, কেননা তাঁর পাঠকরা  তাঁর উপন্যাস পড়ার মধ্য দিয়ে কল্পনায় বিশাল দূরত্ব অতিক্রম করেছিলেন। যেমন – ‘চাঁদের পাহাড়’।

‘চাঁদের পাহাড়’ বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় (bibhutibhushan bandopadhyay)এর প্রিয় উপন্যাসগুলির মধ্যে অন্যতম| যা ,তরুণ পাঠকদের জন্য লেখা হয়েছিল| যদিও  আট থেকে আশি এর আকর্ষণের জন্য খুব সংবেদনশীল। ‘চাঁদের পাহাড়’ এর নায়ক- শঙ্কর রায়চৌধুরী, একজন বাঙালি যুবক| যিনি অর্থাকস্ট এর  প্রয়োজনে কেরানির চাকরিতে বাধ্য হন। শঙ্কর ছিলেন অ্যাথলেটিক এবং দুঃসাহসিক কাজ করার আগ্রহে ভরপুর|

শঙ্কর অবশ্য ডেভিড লিভিংস্টোন এবং মার্কো পোলোর মতো একজন অভিযাত্রী হতে চান ৷ যখন, ভাগ্যের আঘাতে, তিনি উগান্ডা রেলওয়েতে কাজ করার প্রস্তাব পান, তখন শঙ্কর এর হার্টবিট ওঠা নামা করে এবং কাজটিও  গ্রহণ করেন। তিনি আজীবনের দুঃসাহসিক কাজ শুরু করেন, যা অন্যান্য কৌতূহলের মধ্যে অদ্ভুত উপজাতি, মানব-খাদ্য সিংহ এবং বুনিপ গভীর জঙ্গলের নানন ধরনের জীব জন্তু থেকে আগ্নেয়গিরির দৃশ্য ফুটিয়ে তুলে ধরেছেন তাঁর ‘চাঁদের পাহাড়’ উপন্যাস এ |

এটি লেখার কয়েক দশক পরেও , ‘চাঁদের পাহাড়’ আজও বিশ্বের সেরা অ্যাডভেঞ্চার গল্পগুলির মধ্যে জায়গা ধরে রয়েছে। 

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় রচনাবলী | বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় pdf

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় রচনাবলী তথা বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় pdf দেখুন –

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় (bibhutibhushan bandopadhyay biography)একজন বিখ্যাত বাঙালি লেখক| যিনি ১৮৯৪ সালের ১২ই সেপ্টেম্বর উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলায়  জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা মহানন্দা বন্দোপাধ্যায় এবং মাতা মৃণালিনী দেবী ছিলেন। ছোটবেলায় তিনি বনগাঁ হাইস্কুলে পড়াশোনা করেছেন। এবং পরবর্তীতে তিনি রিপন কলেজে ইন্টারমিডিয়েট এবং প্রাপ্তবয়স্ক অবস্থায় অধ্যয়ন করেন।উল্লেখ্য়, রিপন কলেজ এখন কলকাতার সুরেন্দ্রনাথ কলেজ নামে পরিচিত। প্রাপ্তবয়স্ক জীবনে বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় (bibhutibhushan bandopadhyay)জঙ্গীপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক ছিলেন এবং পরে তিনি হরিণাভি অ্যাংলো-সংস্কৃত প্রতিষ্ঠানে যান। তাঁর কর্মজীবনে তিনি অনেক উপন্যাসও লিখেছেন, তার কয়েকটি বিখ্যাত উপন্যাস -’পথের পাঁচালী’। অপরাজিতা , আরণ্যক, দেবজান, ইচ্ছামতি, ‘চাঁদের পাহাড়’ প্রভৃতি। তবে সমস্ত উপন্যাসের মধ্যে তাঁর সেরা কাজ ছিল পথের পাঁচালী যা পরে বিখ্যাত পরিচালক সত্যজিৎ রায় তাঁর চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তুলে ধরেছিলেন। এবং যা পরে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরস্কার জিতেছে। বিভূতিভূষণের লেখায় বাংলার গ্রামীণ এলাকার কষ্ট, দারিদ্র্য, আশা ও স্বপ্নের কথাএবং সুমিষ্ট প্রকৃতি ফুটে উঠেছে| এই বিখ্যাত লেখক ১৯৫০ সালের ১লা নভেম্বর পরলোক গমন করেন।

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় প্রবন্ধ রচনা pdf |bibhutibhushan bandyopadhyay in bengali

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় প্রবন্ধ রচনা pdf (bibhutibhushan bandyopadhyay in bengali)এক ক্লিকেই ডাউনলোড করুন –CLICK HERE

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় প্রবন্ধ রচনা pdf(bibhutibhushan bandyopadhyay in bengali) দেখুন –

কথাসাহিত্য থেকে শুরু করে শতাধিক ছোট গল্প, মুষ্টিমেয় দুর্দান্ত স্মৃতিকথা থেকে শুরু করে প্রবন্ধ – যা ছিল বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় এর কালজয়ী সৃষ্টি।

তিনি ঐতিহাসিক অর্থে একজন আধুনিকতাবাদী দক্ষ লেখক ছিলেন ।  বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর ভাষা ও প্লট সম্পাদনে  ঐতিহ্যবাহী কারিগর ছিলেন।  

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় (bibhutibhushan bandopadhyay)আর গৌরীকুঞ্জ যেনো একে অপরের পরিপূরক। 

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় (bibhutibhushan bandopadhyay)বাংলা সাহিত্যের অন্যতম মৌলিক কণ্ঠস্বর ছিলেন। 

মনে হয় যেন ,তিনি ছিলেন অষ্টাদশ শতকের ইংল্যান্ডের রোমান্টিক কবিদের এক আত্মীয় আত্মা, কেননা তাঁর শ্লোকগুলি প্রকৃতিতে ফিরে আসার আহ্বান নিয়ে বেজে উঠেছিল—  যার ছটা পড়েছিল তাঁর সাহিত্যে | 

তিনি সহানুভূতি ও অন্তর্দৃষ্টির সাথে শহুরে জীবনের চ্যালেঞ্জগুলি সম্পর্কেও লিখেছেন, ঠিক তেমন গ্রামীণ জীবনের বাস্তবতার প্রতি তাঁর গভীর মনোযোগও  ছিল – যা তাঁর লেখার অনন্য স্বাদ এনেছিল।

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় (bibhutibhushan bandopadhyay)এর বিখ্যাত উপন্যাস -’পথের পাঁচালী’। অপরাজিতা , আরণ্যক, দেবজান, ইচ্ছামতি, ‘চাঁদের পাহাড়’ প্রভৃতি।

‘পথের পাঁচালী’-বাংলার একটি গ্রামে বসবাসকারী একটি পরিবারের আন্তঃপ্রজন্মের কাহিনী বর্ণনা করে। 

তাঁর আরও কয়েকটি উপন্যাসেও, তিনি গ্রামীণ পরিবেশে ফিরে এসেছিলেন – যেমন -ইছামতীতে , যা নদীর নামে একটি উপন্যাস। ‘ অশনি -এ তিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের চাপ এবং 1943 সালের দুর্ভিক্ষের কারণে গ্রামীণ অর্থনীতির ক্রমান্বয়ে পতনের বর্ণনা দিয়েছেন যা বাংলার গ্রামাঞ্চলকে ধ্বংস করেছিল।

Join Our Telegram Channel CLICK HERE

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মজীবনী(PDF) |Bibhutibhushan Bandyopadhyay

তাঁর ‘আরণ্যক উপন্যাস’, বিহারের বন্য, অরণ্যভূমিতে পুঁজিবাদের দীর্ঘ হাতের অনুপ্রবেশের জরিপ করা একটি সর্বাধুনিক কাজের মধ্যে অন্যতম। গল্পের নায়ক সত্যচরণ, কলকাতার বেকারত্বের কারণে পাশের রাজ্যে একজন এস্টেট ম্যানেজারের চাকরি নিতে বাধ্য হন। কিন্তু তিনি তার ভূমিকার জন্য এককভাবে অনুপযুক্ত, প্রাকৃতিক দৃশ্যের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের দ্বারা তাকে আঘাত করা হয়েছে যার উপর তাকে জমির মালিকদের, তার নিয়োগকর্তাদের নির্মম দাবি চাপিয়ে দিতে হবে।

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় (bibhutibhushan bandopadhyay)– আরণ্যক অর্থনৈতিক অগ্রগতির স্বার্থে যখন পরিবেশের ধ্বংসকে অকল্পনীয়ভাবে স্বাভাবিক করা হচ্ছে তখন আমাদের সময়ের জন্য একটি আয়না ধরে আছে বলে মনে হচ্ছে।

তিনি সারাজীবন পূর্ব ভারতের সীমিত ব্যাসার্ধের বাইরে ভ্রমণ করেননি, বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় ছিলেন একজন সত্যিকারের বিশ্বজনীন, কেননা তাঁর পাঠকরা  তাঁর উপন্যাস পড়ার মধ্য দিয়ে কল্পনায় বিশাল দূরত্ব অতিক্রম করেছিলেন। যেমন – ‘চাঁদের পাহাড়’।

‘চাঁদের পাহাড়’ বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়(bibhutibhushan bandopadhyay) এর প্রিয় উপন্যাসগুলির মধ্যে অন্যতম| যা ,তরুণ পাঠকদের জন্য লেখা হয়েছিল| যদিও  আট থেকে আশি এর আকর্ষণের জন্য খুব সংবেদনশীল। ‘চাঁদের পাহাড়’ এর নায়ক- শঙ্কর রায়চৌধুরী, একজন বাঙালি যুবক| যিনি অর্থাকস্ট এর  প্রয়োজনে কেরানির চাকরিতে বাধ্য হন। শঙ্কর ছিলেন অ্যাথলেটিক এবং দুঃসাহসিক কাজ করার আগ্রহে ভরপুর|

 শঙ্কর অবশ্য ডেভিড লিভিংস্টোন এবং মার্কো পোলোর মতো একজন অভিযাত্রী হতে চান ৷ যখন, ভাগ্যের আঘাতে, তিনি উগান্ডা রেলওয়েতে কাজ করার প্রস্তাব পান, তখন শঙ্কর এর হার্টবিট ওঠা নামা করে এবং কাজটিও  গ্রহণ করেন। তিনি আজীবনের দুঃসাহসিক কাজ শুরু করেন, যা অন্যান্য কৌতূহলের মধ্যে অদ্ভুত উপজাতি, মানব-খাদ্য সিংহ এবং বুনিপ গভীর জঙ্গলের নানন ধরনের জীব জন্তু থেকে আগ্নেয়গিরির দৃশ্য ফুটিয়ে তুলে ধরেছেন তাঁর ‘চাঁদের পাহাড়’ উপন্যাস এ |

এটি লেখার কয়েক দশক পরেও , ‘চাঁদের পাহাড়’ আজও বিশ্বের সেরা অ্যাডভেঞ্চার গল্পগুলির মধ্যে জায়গা ধরে রয়েছে। 

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মজীবনী

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় একজন বিখ্যাত বাঙালি লেখক| যিনি ১৮৯৪ সালের ১২ই সেপ্টেম্বর উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলায়  জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা মহানন্দা বন্দোপাধ্যায় এবং মাতা মৃণালিনী দেবী ছিলেন। ছোটবেলায় তিনি বনগাঁ হাইস্কুলে পড়াশোনা করেছেন। এবং পরবর্তীতে তিনি রিপন কলেজে ইন্টারমিডিয়েট এবং প্রাপ্তবয়স্ক অবস্থায় অধ্যয়ন করেন।উল্লেখ্য়, রিপন কলেজ এখন কলকাতার সুরেন্দ্রনাথ কলেজ নামে পরিচিত। প্রাপ্তবয়স্ক জীবনে বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় জঙ্গীপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক ছিলেন এবং পরে তিনি হরিণাভি অ্যাংলো-সংস্কৃত প্রতিষ্ঠানে যান। তাঁর কর্মজীবনে তিনি অনেক উপন্যাসও লিখেছেন, তার কয়েকটি বিখ্যাত উপন্যাস -’পথের পাঁচালী’। অপরাজিতা , আরণ্যক, দেবজান, ইচ্ছামতি, ‘চাঁদের পাহাড়’ প্রভৃতি। তবে সমস্ত উপন্যাসের মধ্যে তাঁর সেরা কাজ ছিল পথের পাঁচালী যা পরে বিখ্যাত পরিচালক সত্যজিৎ রায় তাঁর চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তুলে ধরেছিলেন। এবং যা পরে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরস্কার জিতেছে। বিভূতিভূষণের লেখায় বাংলার গ্রামীণ এলাকার কষ্ট, দারিদ্র্য, আশা ও স্বপ্নের কথাএবং সুমিষ্ট প্রকৃতি ফুটে উঠেছে| এই বিখ্যাত লেখক ১৯৫০ সালের ১লা নভেম্বর পরলোক গমন করেন।

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের আত্মজীবনীমূলক উপন্যাসটির নাম কী?

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের আত্মজীবনীমূলক উপন্যাসটির নাম-অপরাজিত পথের ও পথের পাঁচালী

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here