পাটিগণিতের সূত্রাবলী|Trigonometry formulas PDF

0
427
পাটিগণিতের সূত্রাবলী|Trigonometry formulas PDF
পাটিগণিতের সূত্রাবলী|Trigonometry formulas PDF

পাটিগণিতের সূত্রাবলী:Trigonometry formulas PDF এক ক্লিকেই Download করুন|ত্রিকোণমিতি গণিতের একটি গুরুত্বপূর্ণ শাখা। এটি প্রধানত ত্রিভুজ এবং তাদের কোণ নিয়ে কাজ করে। এটি ত্রিভুজের দৈর্ঘ্য এবং কোণের মধ্যে সম্পর্ক প্রদান করে।

এছাড়াও, এটি বৃত্তের মতো অন্যান্য অনেক জ্যামিতিক আকারকে কভার করে। সূত্র এবং সমীকরণের অনেক জটিল উদ্ভবের জন্য বিজ্ঞানে আমাদের ত্রিকোণমিতির সূত্র প্রয়োজন। এই আর্টিকেলে পাটিগণিতের সূত্রাবলী|Trigonometry formulas PDF, Patigonit formula, Patigonit sutro ,পাটিগণিতের সকল সূত্র নিম্নে বর্ণনা হয়েছে –

পাটিগণিতের সূত্রাবলী|Trigonometry formulas PDF

Trigonometry formulas PDF পাটিগণিতের সূত্রাবলী PDF এক ক্লিকেই Download করুন

পাটিগণিতের সূত্র সমূহ| Patigonit formula

Patigonit formula:পাটিগণিতের সূত্র সমূহ ,ত্রিকোণমিতি এবং ত্রিকোণমিতির সূত্রের প্রচুর ব্যবহার রয়েছে। এতে শিক্ষার্থী উদাহরণসহ ত্রিকোণমিতির সূত্র শিখবে। আসুন এটি শিখি।

পাটিগণিতের সূত্রাবলী|Trigonometry formulas PDF
পাটিগণিতের সূত্রাবলী|Trigonometry formulas PDF
  • ত্রিকোণমিতি সূত্র Trigonometry formulas PDF
  • ত্রিকোণমিতি কি?
  • মৌলিক ত্রিকোণমিতিক অনুপাত:
  • কিছু গুরুত্বপূর্ণ সূত্র:
  • সমাধান করা উদাহরণ
  • ত্রিকোণমিতির সূত্র
  • ত্রিকোণমিতি কি?
  • এটি সম্পর্কের অধ্যয়ন যা ত্রিভুজের কোণ, দৈর্ঘ্য এবং উচ্চতা জড়িত। এটি বৃত্তের বিভিন্ন অংশের সাথে সাথে অন্যান্য জ্যামিতিক চিত্রের সাথেও সম্পর্কিত। ত্রিকোণমিতিতে অনেক ত্রিকোণমিতিক অনুপাত রয়েছে যা গণিতে খুবই মৌলিক।

পাটিগণিতের সকল সূত্র |Patigonit sutro

Patigonit sutro :পাটিগণিতের সকল সূত্র দেখুন –

পাটিগণিতের সূত্রাবলী|Trigonometry formulas PDF
পাটিগণিতের সূত্রাবলী|Trigonometry formulas PDF

এটির অনেকগুলি পরিচয় রয়েছে যা বিজ্ঞানের অনেক সমীকরণ এবং সূত্রগুলি শেখার এবং আহরণের জন্য খুব দরকারী।

বিভিন্ন ক্ষেত্র রয়েছে যেখানে ত্রিকোণমিতির এই পরিচয় এবং ত্রিকোণমিতির সূত্র,পাটিগণিতের সকল সূত্র |Patigonit sutro ব্যবহার করা হয়। এখানে আমরা অনেক দরকারী ত্রিকোণমিতিক পরিচয় এবং সূত্র দেখতে পারি।

পাটিগণিতের সূত্রাবলী|Trigonometry formulas PDF

ত্রিকোণমিতিক সূত্র অনেক ত্রিকোণমিতিক ফাংশন জড়িত। এই সূত্র এবং পরিচয়গুলি ভেরিয়েবলের সমস্ত সম্ভাব্য মানের জন্য সত্য।

কোণের পরিমাপ এবং সমকোণী ত্রিভুজের বাহুর দৈর্ঘ্যের মধ্যে সম্পর্ক প্রদানের জন্য ত্রিকোণমিতিক অনুপাতগুলিও খুব মৌলিক।

আমরা সমকোণী ত্রিভুজ বিবেচনা করব। এর মধ্যে আমাদের তিনটি দিক রয়েছে যথা- হাইপোটেনাস, বিপরীত দিক (লম্ব) এবং সংলগ্ন দিক (উচ্চতা)।

সবচেয়ে বড় বাহুকে কর্ণ বলা হয়, কোণের বিপরীত দিকটি বিপরীত এবং যে দিকে কর্ণ এবং বিপরীত উভয়ই বিশ্রাম নেয় সেটি হল সন্নিহিত বাহু।

ছয়টি অনুপাত রয়েছে যা ত্রিকোণমিতির মূল। এইগুলো,

তার (তার)
কোসাইন (cos)
স্পর্শক (ট্যান)
সেক্যান্ট (সেকেন্ড)
কোসেক্যান্ট (সিএসসি)
কোট্যাঞ্জেন্ট (কনুই)

প্রতিটি কোণের জন্য, ত্রিকোণমিতিতে ছয়টি ফাংশন রয়েছে। প্রতিটি ফাংশন হল ত্রিভুজের দুই বাহুর অনুপাত। ছয়টি ফাংশনের মধ্যে একমাত্র পার্থক্য হল আমরা কোন জোড়া পাশ ব্যবহার করছি।

মৌলিক ত্রিকোণমিতিক অনুপাত:
ত্রিকোণমিতিতে, ছয়টি সম্ভাব্য অনুপাত রয়েছে। অনুপাত হল ভাগ দ্বারা দুটি সংখ্যার (বা একটি ত্রিভুজের বাহু) তুলনা। গ্রীক অক্ষর, θ, সমকোণী ত্রিভুজের রেফারেন্স কোণকে উপস্থাপন করতে ব্যবহার করা হবে।

কিছু গুরুত্বপূর্ণ সূত্র:

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here