উদ্ভিদের চলন Pdf|উদ্ভিদের চলন এর প্রকারভেদ। উদ্ভিদের চলন কাকে বলে। Movement in Plants। ট্রপিক চলন ।ট্যাকটিক চলন

0
399
movement in plants-উদ্ভিদের চলন
movement in plants-উদ্ভিদের চলন

উদ্ভিদের চলন-কোন একটি নির্দিষ্ট জায়গায় স্থির থেকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে বা উদ্দীপকের প্রভাবে (Stimuli) জীবের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সঞ্চালনের ঘটনা হলো চলন (Movement in Plants)। কোষের প্রোটোপ্লাজমের সক্রিয়তার দ্বারা সংঘটিত চলন হল জৈবিক চলন এবং ভৌত পদ্ধতিতে যথা ইমবাইবিশন (imbibition) সংগঠিত চলন হল যান্ত্রিক চলন (mechanical movement)।

ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য উদ্ভিদের চলন Pdf ফাইল টি তৈরিকরা হল। আশাকরি উদ্ভিদের চলন কাকে বলে। Movement in Plants এর এই প্রতিবেদনটি আপনাদের ভাল লাগবে ও প্রস্তুতি নিতে সহায়তা করবে।

উদ্দীপকের প্রকৃতির উপর ভিত্তি করে জৈবিক চলন আবার বিভিন্ন ধরনের হয়। এবার জেনে নেওয়া যাক উদ্ভিদ দেহে কত ধরনের চলন দেখা যায়- types of movement in plants

উদ্ভিদ চলনের প্রকারভেদ।Types of movements in plants | উদ্ভিদ চলন কয় প্রকার

উদ্ভিদ চলন বিভিন্ন প্রকার। নিচে উদ্ভিদ চলনের প্রকারভেদ (types of movements in plants) আলোচনা করা হল। 

স্থান পরিবর্তনের উপর ভিত্তি করে উদ্ভিদ চলন মূলত দুই প্রকার। 

  • ✅ট্যাকটিক চলন Tactic movement
  • ✅বক্র চলন curvature movement

আবার,  বক্র চলনকে উদ্দীপকের বৈশিষ্টের উপর ভিত্তি করে দুভাগে ভাগ করা যায়।

  • ➡️ট্রপিক চলন tropic movement
  • ➡️ন্যাস্টিক চলন nastic movement

উদ্দীপকের প্রকারভেদ অনুসারে ট্রপিক চলনকে আবার অনেকগুলি ভাগে ভাগ করা হয়েছে। যথা- phototropic movement , geotropic movement, and hydrotropic movement.

আবার, ন্যাস্টিক চলনকেও অনেকগুলি ভাগে ভাগ করা হয়েছে। যথা – photonastic , thermonastic , chemonastic and sysmonastic 

ট্যাকটিক চলন Plant Tactic Movement

বহিঃস্থ কোন উদ্দীপকের প্রভাবে সংঘটিত উদ্ভিদের সামগ্রিক চলন হল আবিষ্ট সামগ্রিক চলন বা ট্যাকটিক চলন-Plant Tactic Movement। উদাহরণ স্বরূপ ভলভোক্স উদ্ভিদের আলোক উৎসের দিকে সামগ্রিক চলন। অর্থাৎ বলা যেতে পারে যে ট্যাক্টিক (Plant Tactic Movement) চলন আসলে একপ্রকার গমন (Locomotion)। 

ট্যাকটিক চলন | Plant Tactic Movement

ট্যাকটিক চলনের একটি প্রকারভেদ হল ফটো ট্যাকটিক চলন বা ফটো ট্যাক্সিস (plant photo tactic movement)। আলো উদ্দীপকের প্রভাবে (light stimuli) যখন উদ্ভিদের সামগ্রিক চলন ঘটে তখন ওই প্রকার চলন হল ফটোটেকটিক চলন বা ফটো ট্যাক্সিস Plant Tactic Movement। 

পজিটিভ ফটো ট্যাকটিক চলন | Positive photo tactic movement

আলোক উদ্দীপকের উৎসের দিকে সংঘটিত ট্যাকটিক চলন হল পজেটিভ ফটোটাকটিচ চলন। যেমন বিচ্ছুরিত আলোক উৎসের অভিমুখে ক্ল্যামাইডোমোনাস ভলভক্স প্রভৃতি শৈবাল এবং ফোরা ইত্যাদি শৈবালের চলরেণুর চলন।

নেগেটিভ ফটো ট্যাকটিক চলন Negative photo tactic movement

আলোক উৎসের বিপরীত দিকে সংঘটিত ট্যাকটিক চলন হল নেগেটিভ ফটো ট্যাকটিক চলন। যেমন তীব্র আলোক উৎসের বিপরীতে ক্ল্যামাইডোমোনাস ভলভক্স প্রভৃতির শৈবালের চলন।

বক্র চলন | curvature movement

তোমরা নিশ্চয়ই দেখেছো গাছের ডালপালা গুলি আলোর দিকে বেঁকে যায় বা কিছু প্রজাতির লতানো গাছ অন্য কোন গাছকে জড়িয়ে উপরে উঠেছে বা বৃদ্ধি পেয়েছে। সুতরাং স্বতঃস্ফূর্তভাবে বা বহিঃস্থ উদ্দীপকের প্রভাবে বৃদ্ধিজনিত বা রসস্ফীতি জনিত কারণে উদ্ভিদ অঙ্গের চলন যখন নানাভাবে বাঁক সৃষ্টি করে সম্পন্ন হয় তখন উদ্ভিদের এই ধরনের চলনকে বলা হয় বক্র চলন বা curvature movement। 

বহিঃস্থ উদ্দীপকের প্রভাবে সম্পন্ন বক্র চলন হল আবিষ্ট বক্র চলন।

আবিষ্ট বক্র চলন

আবিষ্ট বক্র চলন আবার দুইভাবে সম্পন্ন হতে পারে যথা টপিক চলন বা ট্রপিজোম বা দিক নির্মিত চলন ও ন্যাস্টিক চলন

টপিক চলন বা ট্রপিজোম বা দিক নির্মিত চলন Tropic movement in plants

বহিঃস্থ উদ্দীপকের গতিপথ (direction of stimuli) অনুসারে উদ্ভিদ অঙ্গের আবিষ্ট বক্র চলন হল ট্রপিক চলন বা দিক নির্মিত চলন।

বহিঃস্থ উদ্দীপকের প্রভাবে প্রকৃতি অনুসারে ট্রপিক চলন প্রধানত তিন ধরনের হয় যথা, ফটোট্রপিক চলন (phototropic movement) বা আলোক বৃত্তীয় চলন জিও ট্রপিক চলন বা অভিকর্ষ বৃত্তীয় (geotropic movement) চলন ও হাইড্রোট্রফিক চলন বা জলবৃত্তিজ চলন (hydrotropic movement)

এগুলির প্রতিটির বিষয়ে বিশদে জেনে নেওয়া যাক। 

ফটোট্রপিক চলন বা আলোক বৃত্তিজ চলন | Phototropic movement

আলোক উদ্দীপকের গতিপথ অনুসারে উদ্ভিদ অঙ্গের আবিষ্ট বক্র চলন হল ফটোট্রপিক চলন বা আলোকবর্তি চলন বা Phototropic movement in plant

উদ্ভিদ অঙ্গে বিভিন্ন ধরনের ফটোট্রপিক চলন দেখা যায়।

অনুকূল আলোকবর্তি চলন, প্রতিকূল আলোক ভর্তি চলন, তির্যক আলোকবর্তি চলন।

ফটোট্রপিক চলন বা আলোক বৃত্তিজ চলন | Phototropic movement

অনুকূল আলোবরতি চলন-

এই ধরনের চলনে উদ্ভিদ অঙ্গ আলোক উৎসের দিকে বৃদ্ধি পায় যথা উদ্ভিদের কাণ্ড ও শাখা প্রশাখার আলোর দিকে বৃদ্ধি পাওয়া

প্রতিকূল আলোকবর্তি চলন-

এই ধরনের চলনে উদ্ভিদঙ্গ আলোর উৎসের বিপরীত দিকে বৃদ্ধি পায়। যেমন আলোর উৎসের বিপরীতে মূলের বৃদ্ধি। 

তির্যক আলোকবর্তি চলন-

এই ধরনের চলনে উদ্ভিদ অঙ্গ আলোক রশ্মির সঙ্গে তির্যকভাবে বৃদ্ধি পায় যেমন আলোক রশ্মির সঙ্গে পাতার তির্যকভাবে বৃদ্ধি পাওয়া। 

জিও ট্রপিক চলন বা অভিকর্ষ বৃত্তিজ চলন | Geotropic movement

পৃথিবীর অভিকর্ষ বলের প্রভাবে উদ্ভিদ অঙ্গের আবিষ্ট বক্র চলন হল জিও ট্রপিক চলন বা অভিকর্ষ বৃদ্ধিজলন। এই প্রকার চলন কে গ্রাবি ট্রাপিজম ও বলা হয়। উদ্ভিদ অঙ্গে বিভিন্ন ধরনের দেখা যায় যথা

অনুকূল-অভিকর্ষবর্তী চলন\এই প্রকার চলনে উদ্ভিদ অঙ্গ অভিকর্ষ বলের অনুকূলে বৃদ্ধি পায় যেমন প্রধানমূল অভিকর্ষ বলের অনুকূলে পৃথিবীর কেন্দ্রের দিকে বৃদ্ধি পায়।

প্রতিকূল-অভিকর্ষবর্তী চলন- এই প্রকার চলনে উদ্ভিদ অঙ্গ অভিকর্ষ বলের প্রতিকূলে বৃদ্ধি পায় যেমন কাণ্ড অভিকর্ষ বলের বিপরীতে বৃদ্ধি পায়।

তির্যক-অভিকর্ষবর্তী চলন- এই প্রকার চলনে উদ্ভিদ অঙ্গ অভিকর্ষ বলের সঙ্গে তির্যকভাবে বৃদ্ধি পায় যেমন শাখামুল গুলি অভিকর্ষ বলের সঙ্গে তির্যকভাবে বৃদ্ধি পায়

ডায়াজিওট্রপিক চলন এই প্রকার চলনে উদ্ভিদঙ্গ অভিকর্ষ বলের সঙ্গে সমকোণ বৃদ্ধি পায় যেমন গ্রন্থী কন্দের অনুভূমিক ভাবে বৃদ্ধি পাওয়া

হাইড্রো ট্রপিক চলন বা জল বৃত্তিজ চলন | Hydrotropic movement

সংজ্ঞা- জলের গতিপথ দ্বারা প্রভাবিত উদ্ভিদ অঙ্গের আবিষ্ট বক্র চলন হল হাইড্রোট্রপিক চলন বা জলবৃত্তিজ চলন।

উদ্ভিদঙ্গে বিভিন্ন ধরনের হাইড্রো ট্রপিক চলন দেখা যায় যেমন

অনুকূল জলবৃত্তিজ চলন – এই ধরনের চলনে উদ্ভিদ অঙ্গের বৃদ্ধি জলের উৎসের অনুকূলে ঘটে যেমন মূল জলের উৎসের দিকে বৃদ্ধি পায়

প্রতিকূল জলবৃত্তিজো চলন- এই ধরনের চলনে উদ্ভিদঙ্গের বিরুদ্ধে জলের উৎসের প্রতিকূলে ঘটে যেমন কাণ্ড ও লবণাম্বু উদ্ভিদের শ্বাসমূল জলের উৎসের বিপরীতে বৃদ্ধি পায়।

ন্যাস্টিক চলন | Nastic movement । what is called the nastic movement in plants

সংজ্ঞা: বাহ্যিক উদ্দীপকের তীব্রতার দ্বারা প্রভাবিত উদ্ভিদ অঙ্গের রস অতিথি জনিত আবিষ্ট বক্র চলন হল ন্যাস্টিক চলন। বাহ্যিক উদ্দীপকের প্রকৃতি অনুসারে ন্যাস্টিক চলন আবার বিভিন্ন প্রকারের হয় যেমন

ন্যাস্টিক চলন | Nastic movement
ন্যাস্টিক চলন | Nastic movement

ফটো ন্যাস্টিক চলন | what is called Photonastic movement in plant

আলোক উদ্দীপকের তীব্রতার হ্রাস বৃদ্ধির ফলে উদ্ভিদ অঙ্গের রসস্ফীতি জনিত আবিষ্ট বক্র চলন হল ফটো ন্যাস্টিক চলন যেমন পদ্মফুল সূর্যমুখী দিনেরবেলা ফোটে ও সন্ধ্যার সময় কম আলোতে বুঝা যায় আবার বেলফুল সন্ধ্যামালতি হাসনুহানা ইত্যাদি রাতে ফোটে কিন্তু দিনের বেলা সূর্যালোকে বুঝে যায়

থার্মোনেসটিক চলন | Thermotactic movement in plant

উষ্ণতার তীব্রতার দ্বারা নিয়ন্ত্রিত উদ্ভিদঙ্গের রসস্ফীতি জনিত আবিষ্ট বক্র চলন হল থার্মো ন্যাস্টিক চলন যেমন টিউলিপ ফুল বেশি উষ্ণতায় ফোটে এবং কম উষ্ণতায় বন্ধ হয়ে যায়

কেমোন্যাস্টিক চলন | Chemo-nastic movement in plant

রাসায়নিক পদার্থের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত উদ্ভিদ অঙ্গের রস সংস্কৃতি জনিত আবিষ্ট বক্র চলন হল কেমোন্যাস্টিক চলন। 

সিসমনাস্টিক চলন | Sysmonastic Movement in Plant

স্পর্শ উদ্দীপনা বা আঘাত জনিত উদ্দীপনার যথা, কম্পন বৃষ্টির সময় জল বিন্দুর পতন বায়ুপ্রবাহ ইত্যাদি তীব্রতা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত উদ্ভিদ অঙ্গের সংস্কৃতি জনিত আবিষ্ট বক্র চলন হল সিসমোন্যাস্টিক চলন। 

যেমন লজ্জাবতী পাতার কোন একটি পিনার অগ্রভাগের পত্রক গুলিকে আলতোভাবে স্পর্শ করলে পিনার পত্রকুলির অগ্রভাগ থেকে মূলের দিকে ক্রমান্বয়ে জোড়ায় জোড়ায় বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু পত্রক গুলিকে জোরালোভাবে স্পর্শ করলে স্পর্শ উদ্দীপনা পার্শ্ববর্তী পিনাগুলিতে পরিবাহিত হয় ও তাদের পত্রকগুলি মূলের দিক থেকে অগ্রভাগের দিকে ক্রমান্বয়ে বন্ধ হয়ে যায় এবং একসময় সমগ্র পাতাটি ঝুলে পড়ে। 

উদ্ভিদের চলন pdf | Plants movements pdf

আপনি কি উদ্ভিদের চলন pdf ফাইলটি খুঁজছেন ? তাহলে নিচে দেওয়া pdf download করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here